ফেসবুকে অটোলাইক নেওয়া কতটা নিরাপদ (বিস্তারিত দেখুন)

বর্তমানে সবথেকে বহুল ব্যবহৃত সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের নাম হলো ফেসবুক
2004 সালে মার্ক জাকারবার্গ ও তার বন্ধুরা ফেসবুক প্রতিষ্ঠা করেন।
শুরুতে এটি সীমিত পরিসরে শুরু হলেও সময়ের বিবর্তনে বর্তমানে সারা পৃথিবীতে সমানভাবে জনপ্রিয়।
সর্বশেষ আলেক্সা র্যাংক(Alexa Rank) এর তথ্য অনুযায়ী গুগলের পরেই সর্বোচ্চ ব্যবহৃত ওয়েবসাইটের নাম হলো ফেসবুক
আজকাল আমরা প্রায় সবাই ফেসবুক ব্যবহার করে থাকি।
আজকাল অনেকে বেশি বেশি লাইক কমেন্ট কিংবা ফলোয়ার পাবার আশায় বিভিন্ন থার্ড পার্টি ওয়েবসাইট বা apps ব্যবহার করে থাকি।
যা সম্পূর্ণ ঝুঁকিপূর্ণ এবং অনিরাপদ।

ফেসবুকে অনেক ফ্রেন্ড রিকোয়েস্ট এসেছে? এবার ১ক্লিকে সব রিকোয়েস্ট একসেপ্ট করুন

এসব ওয়েবসাইটের মাধ্যমে লাইক, ফলোয়ার, কিংবা ফ্রেন্ড রিকোয়েস্ট নেয়ার সময় আমাদের অগোচরে ফেসবুকের পাসওয়ার্ড সহ যাবতীয় একসেস তাদের হাতে তুলে দিচ্ছি। এতে তারা ইচ্ছা করলেই আমাদের এসব তথ্যের অপব্যবহার করতে পারে।
আর বর্তমানে সারা পৃথিবীতে এভাবেই সবার অজান্তেই তথ্য চুরি হয়ে যাচ্ছে।

ফেসবুক বর্তমানে ব্যবহারকারীদের সর্বোচ্চ নিরাপত্তা দিতে একাউন্ট এর সিকিউরিটি বা প্রাইভেসি অনেক কঠিন থেকে কঠিনতর করে চলেছে।
তাতে কি আমরা আমাদের ঘরের চাবি চোরের হাতে স্বেচ্ছায় তুলে দিলে যা হবে আরকি।
ঠিক এসব অটোলাইকার apps বা ওয়েবসাইটের ক্ষেত্রেও এমনটা আমরা কিছু লাইক পাওয়ার আশায় আমাদের বেক্তিগত ফেসবুক একাউন্ট এর পাসওয়ার্ড এদের হাতে তুলে দিচ্ছি যা সম্পূর্ণ ঝুঁকিপূর্ণ।
এতে করে আমাদের বেক্তিগত নিরাপত্তা ঝুঁকির সম্মুখীন হয়ে যাচ্ছে।
তাই আমাদের এসব থার্ড পার্টি ওয়েবসাইট ব্যবহার থেকে বিরত থাকতে হবে। এতে সবার বেক্তিগত তথ্য সুরক্ষিত থাকবে।

আসুন সবাই মিলে আমাদের ইন্টারনেট জগৎকে নিরাপদ গড়ে তুলি।
●●●●ধন্যবাদ সবাইকে●●●●

Updated: September 2, 2019 — 11:14 am

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *