নিজের মোবাইল থেকে নগদ একাউন্ট খোলার নিয়ম (Exclusive)

হ্যালো বন্ধুরা, কেমন আছেন সবাই?
আসা করি সবাই ভালোই আছেন।
আজকে আমি আপনাদের মাঝে দারুন একটি টপিক নিয়ে এসেছি।
আজকের পোস্টের বিষয় কিভাবে নিজেই নিজের নগদ একাউন্ট খুলবেন
তাহলে কথা না বাড়িয়ে শুরু করা যাক।

নগদ একাউন্ট কি

নগদ হলো বাংলাদেশ ডাক বিভাগ থেকে পরিচালিত একটি মোবাইল ব্যাংকিং প্রতিষ্ঠান।
এটি কয়েকমাস আগে যাত্রা শুরু করেছে।
এটি অনেকটা বিকাশ বা ডাচ বাংলা মোবাইল ব্যাংকিং এর মতোই।
বর্তমানে এর কয়েকটি বিশেষ সুবিধার কারণে ব্যাপক জনপ্রিয়তা লাভ করেছে

কেন নগদ একাউন্ট ব্যবহার করা উচিৎ

বর্তমানে বিকাশ বা ডাচ বাংলা মোবাইল ব্যাংকিং গুলোর ব্যাপক জনপ্রিয়তা থাকা সত্তেও এগুলার অনেক সীমাবদ্ধতা রয়েছে।
যেমন:

  • দিনে ৩০,০০০হাজারের বেশি টাকা পাঠানো যায়না
  • মাসে ২৫বারের বেশি টাকা সেন্ড করা যায়না
  • বর্তমানে ফি অনেক বৃদ্ধি পেয়েছে।

উপরোক্ত সীমাবদ্ধতা গুলোর কারণেই আমাদের সবার নগদ একাউন্ট একাউন্ট ব্যবহার করা উচিৎ কারণ।
নগদ একাউন্ট এর কিছু সুবিধা:

  • গ্রাহক প্রতিবার সর্বোচ্চ ৫০,০০০ টাকা এবং সর্বমোট ১০ বারে ২৫০,০০০ টাকা দৈনিক লেনদেন করতে পারবে
  • মাসে সর্বোচ্চ ৫০০,০০০ টাকা ক্যাশ ইন অথবা ক্যাশ আউট করতে পারবেন সর্বোচ্চ ৫০ বারে
  • ক্যাশ ইন এর জন্য গ্রাহককে কোন ধরণের চার্জ প্রদান করতে হবে না

মোবাইল রিচার্জ ও লেনদেন সংক্রান্ত চার্জ

বর্তমানে রিচার্জ করার জন্য কোনো চার্জ কাটা হয়না।
এজেন্ট থেকে বেক্তিগত একাউন্টে টাকা পাঠানো বিনামূল্যে এবং ব্যক্তিগত থেকে বেক্তিগত একাউন্টে টাকা পাঠাতে ৫টাকা ফি কেটে নিবে।
এছাড়াও ক্যাশ আউটের ক্ষেত্রে ১৮টাকা প্রতি হাজারের জন্য নির্ধারিত ফি।
এবং USSD হলো: *167#

নগদ app থেকে

টাকা উত্তোলনের জন্য প্রতি হাজারে ১৭ টাকা হারে চার্জ কাটা হবে
ব্যাক্তিগত থেকে ব্যাক্তিগত টাকা পাঠাতে কোনো চার্জ নেই।

যেভাবে নগদ একাউন্ট তৈরি করবেন

আপনার ব্যক্তিগত নগদ একাউন্ট খোলার জন্য আজকেই চলে আসুন আপনার নিকটবর্তী নগদ এজেন্ট এর কাছে।

নগদ একাউন্ট তৈরি করতে যা দরকার

  • জাতীয় পরিচয় পত্র
  • আপনার পাসপোর্ট সাইজের ছবি
  • একটি মোবাইল নাম্বার
  • একটি মোবাইল ফোন

নগদ মেনু কোড

আপনার মোবাইল থেকে ডায়াল করুন *167#

●●●●ধন্যবাদ সবাইকে●●●●

Updated: September 3, 2019 — 6:13 am

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *